বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:১২ অপরাহ্ন

ভালোবাসা দিবসের ইতিহাস

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম: শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৭০ বার পাঠিত

ভালবাসা। ছোট্ট একটি শব্দ হলেও এর অর্থ কিন্তু অনেক অনেক বেশি। এই ছোট্ট একটি শব্দই পুরো দুনিয়াকে পালটে দিতে এক নিমিষেই। আর এই শব্দটির জন্য পুরো বিশ্ব জুড়েই পালন করা হয় একটি দিবস। ভ্যালেন্টাইন ডে বা ভালবাসা দিবস। বিশ্বজুড়ে ১৪ ফেব্রুয়ারি দিনটি উদযাপন করা হয়। তবে এ দিনটির পেছনেও রয়েছে এক বিশাল ইতিহাস। তা হয়ত আমরা অনেকেই জানি না। যদি জানতাম তাহলে ১৪ ই ফেব্রুয়ারী আমরা পালন করতাম না, যদি জানতাম তাহলে আমরা কেউ প্রেমিকাকে নিয়ে পার্কে যেতাম না।

জেনে নেওয়া দরকার দিনটির ইতিহাস সম্পর্কে। আসলে কেন পালন করা হয় ১৪ ফেব্রুয়ারী। ২৬৯ সালে  ইতালির রোম  নগরীতে সেন্ট ভ্যালেন্টাইন’স নামে একজন খৃষ্টান পাদ্রী ও চিকিৎসক ছিলেন। ধর্ম প্রচারের অভিযোগে তৎকালীন রোম সম্রাট দ্বিতীয় ক্রাডিয়াস তাকে বন্দী করেন। কারণ তখন রোমান সাম্রাজ্যে খৃষ্টান ধর্ম প্রচার নিষিদ্ধ ছিল। বন্দী অবস্থায় তিনি জনৈক কারারক্ষীর দৃষ্টহীন মেয়েকে চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ করে তোলেন। এতে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের জনপ্রিয়তা বেড়ে যায়। আর তাই তার প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজা তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। সেই দিন ১৪ই ফেব্রুয়ারি ছিল। অতঃপর ৪৯৬ সালে পোপ সেন্ট জেলাসিউও ১ম জুলিয়াস ভ্যালেন্টাইন’স স্মরণে ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইন’ দিবস ঘোষণা করেন।

খৃষ্টানজগতে পাদ্রী-সাধু সন্তানদের স্মরণ ও কর্মের জন্য এ ধরনের অনেক দিবস রয়েছে। যেমন: ২৩ এপ্রিল – সেন্ট জজ ডে, ১১ নভেম্বর – সেন্ট মার্টিন ডে, ২৪ আগস্ট – সেন্ট বার্থোলোমিজম ডে, ১ নভেম্বর- আল সেইন্টম ডে, ৩০ নভেম্বর – সেন্ট এন্ড্রু ডে, ১৭ মার্চ – সেন্ট প্যাট্রিক ডে। পাশ্চাত্যের ক্ষেত্রে জন্মদিনের উৎসব, ধর্মোৎসব সবক্ষেত্রেই ভোগের বিষয়টি মুখ্য। তাই গির্জাঅভ্যন্তরেও মদ্যপানে তারা কসুর করে না। খৃস্টীয় এই ভ্যালেন্টাইন দিবসের চেতনা বিনষ্ট হওয়ায় ১৭৭৬ সালে  ফ্রান্স  সরকার কর্তৃক ভ্যালেইটাইন উৎসব নিষিদ্ধ করা হয়। ইংল্যান্ডে ক্ষমতাসীন পিউরিটানরাও একসময় প্রশাসনিকভাবে এ দিবস উদযাপন নিষিদ্ধ ঘোষণা করে।

এছাড়া অস্ট্রিয়া, হাঙ্গেরি ও জার্মানিতে বিভিন্ন সময়ে এ দিবস প্রত্যাখ্যাত হয়। সম্প্রতি পাকিস্তানেও  ২০১৭ সালে ইসলাম বিরোধী হওয়ায় ভ্যালেন্টাইন উৎসব নিষিদ্ধ করে সে দেশের আদালত। বর্তমানকালে, পাশ্চাত্যে এ উৎসব মহাসমারোহে উদযাপন করা হয়। যুক্তরাজ্যে মোট জনসংখ্যার অর্ধেক প্রায় ১০০ কোটি পাউন্ড ব্যয় করে এই ভালোবাসা দিবসের জন্য কার্ড, ফুল, চকোলেট, অন্যান্য উপহারসামগ্রী ও শুভেচ্ছা কার্ড ক্রয় করে এবং আনুমানিক প্রায় ২.৫ কোটি শুভেচ্ছা কার্ড আদান-প্রদান করা হয়।

 

সাকিব আল হাসান রুবেল

গণমাধ্যম কর্মী, রৌমারী- কুড়িগ্রাম।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন..

More News Of This Category
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2021 CNBD.TV    
IT & Technical Supported By: NXGIT SOFT
themesba-lates1749691102